ইউএনডব্লিউটিও টুরিজম এথিক্স কমিটি-র সদস্য নিযুক্ত শাহীদ হামিদ

ইউএনডব্লিউটিও

 

সোটেল হস্পিট্যালিটি ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কনসালটেন্সি নামক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শাহীদ হামিদ এফ আই এইচ, জাতিসংঘ বিশ্ব পর্যটন সংস্থার ২৪ তম সাধারন সভায় ওয়ার্ল্ড কমিটি অন ট্যুরিজম এথিক্স এর বিকল্প সদস্য নিযুক্ত হয়েছেন। ইউএনডব্লিউটিও এর সাধারন সভা ১লা ডিসেম্বর ২০২১ সালে স্পেনের মাদ্রিদে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড কর্তৃক বছরের শুরুতেই শাহীদকে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে এই পদের জন্য মনোনীত করে। এই প্রথম কোন বাংলাদেশী জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড কমিটি অন ট্যুরিজম এথিক্স এর সম্মানে ভূষিত হন। উক্ত পদে শাহীদ ২০২১ সাল থেকে ২০২৫ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি তিনি পাটা বাংলাদেশ চ্যাপ্টার এর চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্বরত আছেন। এর আগে শাহীদ হামিদ প্যাসিফিক এশিয়া ট্রাভেল অ্যাসোসিয়েশন গ্লোবাল এর নির্বাহী বোর্ডের সদস্য হিসেবে ২০১৮ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ওয়ার্ল্ড কমিটি অন ট্যুরিজম এথিক্স একটি স্বাধীন এবং নিরপেক্ষ সংস্থা, যা ইউএনডব্লিউটিও এর সাধারন পরিষদের অর্ন্তভুক্ত এবং পর্যটনের জন্য গ্লোবাল কোড অব এথিক্স এর নীতিগুলির বাস্তবায়ন, মূল্যায়ন এবং পর্যবেক্ষনে নিয়োজিত থাকে । এর প্রধান কাজ হল সমাজ ও পরিবেশের জন্য নৈতিক প্রভাব সহ সেই সমস্থ সম্যসা গুলির সমাধান করা যা প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে পর্যটন ক্ষাতের সাথে সরাসরি যুক্ত থাকে।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ২০১০ সালে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীনে, বাংলাদেশের জাতীয় পর্যটন সংস্থা হিসেবে প্রাতষ্ঠিত হয়েছিল এবং এই খাতকে প্রচার এবং পরিচালনার দায়িত্ব পালন করে আসছে। দেশের এই সুবর্ণ জয়ন্তী উৎযাপনের অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটি শাহিদকে বৈশ্বিক এই সংস্থার নমিনেশনে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যায় ।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এর চেয়ারম্যান জনাব জাবেদ আহমেদ বলেন, শাহিদ হামিদকে ওয়ার্ল্ড কমিটি অন ট্যুরিজম এথিক্স এর সদস্য নির্বাচিত করায় আমি গর্বিত। আমি মনে করি, পর্যটনে তার বহুমাত্রিক দক্ষতা বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে তুলে ধরতে সহায়তা করবে”।

শাহিদ এমন একটি নির্বাচনে নির্বাচিত হতে পেরে খুবই আনন্দিত। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এমন একটি সংস্থা কর্তৃক স্বীকৃতি এবং নির্বাচিত হওয়া নিঃসন্দেহে আমার জন্য একটি বড় অর্জন” । তিনি আরও বলেন, বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশর পরিচিতি আরও বৃদ্ধি করতে পেরে আমি খুবই গর্বিত। বিজয়ের এই ৫০ বছর উৎযাপনের মাঝে এমন একটি স্বীকৃতি আমাকে আরও অনুপ্রানিত করবে এই পর্যটন শিল্পকে সামনে দিকে এগিয়ে নিতে”।

২০১৮ সালে প্যাসিফিক এশিয়া ট্রাভেল অ্যাসোসিয়েশন হেড কোয়ার্টার এর নির্বাহী বোর্ডের সদস্য হিসেবে নির্বচিত হওয়া প্রথম এবং একমাত্র বাংলাদেশিও ছিলেন তিনি। এ ছাড়াও তিনি স্কাল ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের বোর্ডেও রয়েছেন এবং ইনস্টিটিউট অফ হস্পিট্যালিটি, ইউকে থেকে ফেলোশিপ অর্জন করেছেন । গর্বিত এই বাঙ্গালী কর্নেল ইউনিভার্সিটি  ইউএসএ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রাক্তন ছাত্র। তিনি গত ৪ দশকের অধিক সময় ধরে বাংলাদেশ পর্যটন শিল্পে বিশেষ অবদান রেখেছেন ।

 

 

 

 

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Next Post

ফরচুন বাংলা চ্যানেল সুইমিং ২০২১-এর ১৬তম আসর অনুষ্ঠিত

শুক্র ডিসে ২৪ , ২০২১
  বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ‘ফরচুন বাংলা চ্যানেল সুইমিং ২০২১’ এর ১৬তম আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সকাল পৌনে ১১টায় টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহ পরীর দ্বীপের পশ্চিম পাড়া সৈকত থেকে অংশগ্রহণকারীরা বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেয়ার জন্য সমুদ্রযাত্রা শুরু করেন। বেলা আড়াইটার দিকে একে একে সাতারুরা ১৬ দশমিক ১ […]
ফরচুন