টানা বৃষ্টিতে মোংলা বন্দরে পণ্য ওঠানামা বন্ধ: ৩ নম্বর  সংকেত বহাল

বঙ্গোপসাগরের লঘুচাপটি মৌসুমি বায়ুর সঙ্গে মিশে বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় বিরাজ করছে। ফলে আজ মঙ্গলবারও মোংলা সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বলবৎ রয়েছে।

এর প্রভাবে গতকাল সোমবার দিবাগত রাত থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিপাত আজও অব্যাহত রয়েছে। রাত থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিপাত সকালেও অব্যাহত থাকার কারণে মোংলা বন্দরে অবস্থানরত সার ও ক্লিঙ্কারসহ বিভিন্ন পণ্যবাহী ১৫টি বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের মালামাল ওঠানামার কাজ সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দিন।

শেখ ফখর উদ্দিন বলেন, ‘বর্ষায় প্রতিদিনই কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে। এর মধ্যে যখন বৃষ্টি কমছে, তখন কাজ শুরু হচ্ছে; আবার যখন বাড়ছে, তখন বন্ধ থাকছে। তবে স্বাভাবিক রয়েছে বন্দর জেটির অভ্যন্তরের কার্যক্রম।’

এদিকে বৃষ্টির পানিতে মোংলা পৌরশহর ও শহরতলির নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া এখানকার বেশকিছু চিংড়ি ঘের তলিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুন: ইউজিসির নির্দেশনায় অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা করছে জবি

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এ জেড এম তৌহিদুজ্জামান বলেন, ‘সকাল থেকে বিভিন্ন এলাকায় খোঁজখবর নিয়ে তালিকা নির্ণয় করা হচ্ছে। দুপুরের দিকে সঠিক সংখ্যা জানানো সম্ভব হবে। টানা বৃষ্টিপাতে এখানকার স্বাভাবিক জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া দিন মজুর ও রিকশা-ভ্যানচালকেরা।’

তবে এমন টানা বৃষ্টিপাত মঙ্গলবার দিনভর অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

Spread the love

আকাশ ইসলাম, বাগেরহাট প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Next Post

হাসপাতাল থেকে সাহেদকে নেওয়া হলো দুদকে

মঙ্গল আগ ১৮ , ২০২০
প্রথম দিনের রিমান্ডের পর অসুস্থতার কথা বলায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে তার শারীরিক কোনও সমস্যা না পাওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে ছেড়ে দেন। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবার দুর্নীতি দমন কমিশন কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এর আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নিয়ে তার শারীরিক পরীক্ষা […]