শার্শায় সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ

যশোরের শার্শা উপজেলার নাভারন বুরুজবাগান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আব্দুল আলীম নামে এক সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। এমন কাণ্ডে এলাকা জুড়ে চলছে সমালোচনার ঝড়। ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-অভিভাবক ও শিক্ষকদের মধ্যে চরম অসন্তোষ এবং ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে ওই ছাত্রী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির বরাবর একটি অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।

অভিযোগে ভুক্ত ভোগী ছাত্রী জানায়, আমি নাভারন বুরুজ বাগান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলীমের কাছে আমি সহ কয়েকজন ছাত্রী বেশ কিছু দিন যাবদ তার নিজ বাড়ীতে প্রাইভেট পড়ে আসছি। আলীম স্যার বিভিন্ন সময়ে অন্যান্য ছাত্রীদের অগোচরে আমাকে বিভিন্ন ভাবে গায়েস্পর্শ করার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকে। আমি লজ্জায় একথা কাউকে বলতে পারিনি। গত ৪ এপ্রিল আমাদের পড়া শেষ হয়ে যাওয়ার পর অন্যান্যরা সবাই চলে গেলে আলীম স্যার আমাকে নোট দেবে বলে কিছুক্ষন বসতে বলে। আমি একা ওখানে বসে থাকার এক সময়ে আলীম স্যার আমাকে কুরুচিপূর্ন কথা বলে। আমি তা সহ্য করতে না পেরে তৎক্ষনাত নিজ বাড়ীতে এসে আমার মায়ের কাছে আগে এবং পরের সমস্ত ঘটনা খুলে বলি। আমি আর আলীম স্যারের কাছে পড়বোনা বলে জানায়। এলাকার জনগণ এবং অভিভাবক সহকারী প্রধান শিক্ষকের এই কর্মকান্ড নিয়ে খুবই বিস্মিত ও ক্ষোভে ফেটে পড়ে। তারা আব্দুল আলীম স্যারের দ্রুত শাস্তির দাবি করেছেন।

এ ঘটনায় নাভারন বুরুজবাগান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ইব্রাহিম খলিল বলেন, এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। পরিচালনা পরিষদের মিটিংয়ের পর পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলিমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একটি মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। এ ষড়যন্ত্রের সাথে এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল জড়িত।

শার্শা উপজেলা শিক্ষা অফিসার হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, এ রকম একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *