গত অর্থ বছরে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স রেকর্ড

করোনা মহামারির মধ্যেও প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে বড় উল্লম্ফন নিয়ে শেষ হলো ২০২০-২১ অর্থবছর। যদিও অর্থবছরের প্রথম দুই মাসের সাধারণ ছুটির পর কাঙ্ক্ষিত আয় হয়নি দেশের। সদ্য সমাপ্ত ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রবাসীরা ব্যাংক ব্যবস্থার মাধ্যমে ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন।

সোমবার (৫ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২০২০-২১ অর্থবছরের শেষে মাস জুনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ১৯৪ কোটি ডলার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন। ফলে সদ্য সমাপ্ত পুরো অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স আহরণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় দুই লাখ ১০ হাজার ৬১০ কোটি টাকার বেশি।

এর আগের অর্থবছরে যার পরিমাণ ছিল এক হাজার ৮২০ কোটি ডলার। এ হিসাবে গত অর্থবছরে রেমিট্যান্স বেড়েছে ৬৫৭ কোটি ডলার বা ৩৬ দশমিক ১০ শতাংশ। একক অর্থবছরে এর আগে কখনও এত রেমিট্যান্স আসেনি। এক অর্থবছরে এত প্রবৃদ্ধি কখনও হয়নি।

এর আগে রেমিট্যান্সে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধির রেকর্ড ছিল ২০০১-০২ অর্থবছরে। ওই অর্থবছরে প্রবাসীরা ২৫০ কোটি ডলার দেশে পাঠান যা আগের অর্থবছরের চেয়ে ৩২ দশমিক ৮৯ শতাংশ বেশি ছিল। আর সাধারণভাবে প্রতিবছর রেমিট্যান্স বাড়লেও ২০০০-০১, ২০১৩-১৪, ২০১৫-১৬ ও ২০১৬-১৭ অর্থবছরে কমে যায়।

সংশ্নিষ্টরা জানান, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বৃদ্ধির ফলে শ্রীলঙ্কাকে ২০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বাংলাদেশ। কোনো দেশকে প্রথমবারের মতো রিজার্ভ থেকে ঋণ দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন প্রকল্পেও ঋণ দেওয়ার চিন্তাভাবনা চলছে।

Spread the love

অর্থনীতি ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Next Post

ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৩০

মঙ্গল জুলা ৬ , ২০২১
ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২৩০ জন।   মঙ্গলবার (৬ জুলাই) করোনা বিষয়ক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম এ তথ্য জানান। সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম জানান, মঙ্গলবার সকালে কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ ল্যাব থেকে ৫৯১ […]
ঝিনাইদহে করোনা